top of page
Search

সাত্যকি বসুর একটি কবিতা




অনেক লড়াই হলো তোমায় পাবার জন্য

আর নয় এবার নীরবতাই হোক পাথেয়!

তোমার ভালোবাসা পাওয়ার জন্য আমি পাহাড় ডিঙিয়েছি,

দুরন্ত ঝর্ণার তীব্র গতিবেগকে অবজ্ঞা ভরে উপেক্ষা করেছি,

তীব্র ঝঞ্জায় দৌড়েছি ধুলোবালি খড়কুটো বিদীর্ণ করেছে আমায়,

তবু তোমায় পাবার নেশা আমার মাথায় জাঁকিয়ে বসেছে!

সারা অঙ্গ যখন রিক্ত জীর্ন বিদারিত,

তখন হটাৎ শহরের কোনো এক নিয়ন আলোর নীচে কাঠের বেঞ্চিতে নিজেকে আবিষ্কার করলাম,

কোনো এক মাতাল নদীর পাগল হাওয়া আমার সারা অঙ্গে শীতলতা ছুঁইয়ে দিলো,

হটাৎ বৃষ্টি নামলো কি দারুণ তোড়ে

বিশ্বাস করো এই বৃষ্টিতে কোনো যন্ত্রনা নেই,

আছে শুধুই স্নেহেভরা প্রকৃতিমায়ের আদর।

আমি তখন উপলব্ধি করলাম নিজেকে ,

যে ভালোবাসায় এত যন্ত্রনা তার চেয়ে এই প্রকৃতির স্নেহ কি শ্রেয় নয়!

সেই মুহূর্ত থেকে প্রকৃতি আমার প্রেম,কবিতা আমার ভালোবাসা,

লোকে অবজ্ঞা ভরে বলে ব্যার্থ প্রেমিক,তাতে কি বা যায় আসে ?

আজও আমি শহরের কোনো এক বেঞ্চিতে নিয়ন আলোর সন্ধ্যায় তোমায় উপভোগ করি,

প্রকৃতির ক্যানভাসে তোমার আদল ফুটে ওঠে,

আমি ডাইরির পাতায় আঁচড় কেটে তোমায় আদর করি

কে যেন হটাৎ আমার কপালে চুম্বন করে,

আমি হটাৎ আদর পেয়ে শিউরে উঠি!

12 views0 comments

Comments


bottom of page