Search

হাস্যরসের গল্পে চুনিলাল দেবনাথ


রমেনের জামাইবাবু

চুনীলাল দেবনাথ


বেশ কয়েক বছর আগে রমেনের বড়ো জামাইবাবু অসুস্থ হয়ে পড়েছিল । দিদি-জামাইবাবু থাকে একটি গ্রামে । গ্রামের বাড়ি থেকে শহরের হাসপাতাল অনেকটা দূরে হওয়ার ফলে জামাইবাবুকে এম্বুলেন্স করে রাতে হাসপাতালে নিয়ে আসতে হয়েছিল । হাসপাতালের চিকিৎসায় রমেনের জামাইবাবুর অবস্থা দুই একদিনের মধ্যেই একটু ভালো হয় । এটা বেশ শহরের নামডাক আছে এমন একটা হাসপাতাল। দুইদিন পরে রমেন জামাইবাবুর মোবাইলে ফোন করে , 'হ্যালো , জামাইবাবু আমি রমেন ।' ওপ্রান্ত থেকে জামাইবাবু বলে , 'হ্যালু হ্যালু আমি কইত্যাছি।'


'কেমন আছেন ?'


'এহোন একটু বালোই আছি ।'


'ডাক্তার কী বললো ?'


'ডাক্তার দ্যাখসেতো। ডাক্তার কইলো হার্ডের একটু আসুবিধা আচে। ওষুধ ল্যাইখ্যা দিসে।আর পরীক্ষা-মরীক্ষা করতে কইসে ।'


'তা ওষুধ গুলো খাচ্ছেন এখন ?'


'খামু কইত্যে ।বাইরেত্যে কিন্যা আনতো হইবো ।'


'কেন? হাসপাতাল থেকে ওষুধ দেয় না?'


'না, দুই একডা গ্যাসের ম্যাসের দেয়। বাহিডি কিনতো হইবো ।'


'আর পরীক্ষা গুলো?'


'কইলোতো রক্ত পরীক্ষাডা হইবো। আর আলট্রা সুনুডা বাইরে থাইক্যা করতো হইবো।'


'আলট্রাসনোগ্রাফি বাইরে থেকে কেন ?'


'আরে হ্যাগো মেশিনডা খারাপ হইয়া রইছে ।'


'সঙ্গে কে যাবে ?'


'আমার বাইএদো আইবো কইসে।'

রমেন বুঝলো জামাইবাবুর ভাই পরীক্ষা গুলো করানোর দায়িত্ব নিয়েছে। রমেন তারপর জিজ্ঞেস করলো , 'টাকা পয়সা ।'


'হিড্যাইতো সম্যসা ।'

--- -----------

29 views0 comments